বগুড়ায় সরকারি চালসহ আ.লীগের ২ নেতা আটক

শেয়ার করুন...

বগুড়ার নন্দীগ্রামে সরকারি চাল কালোবাজারির মাধ্যমে মজুত করার অভিযোগে গতকাল শনিবার আওয়ামী লীগের দুই নেতাকে আটক করা হয়েছে। তাঁদের কাছে পাওয়া গেছে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির (১০ টাকায় বিক্রির জন্য) ১৬৮ বস্তা চাল।

এই দুই আওয়ামী লীগ নেতা হলেন নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান এবং তাঁর সহযোগী নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আনছার আলী।

র‍্যাব জানায়, গতকাল রাতে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে প্রথমে নন্দীগ্রাম উপজেলার সিমলা বাজারের পাশে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় তাঁর বাড়ি তল্লাশি করে ৫৮ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করা হয়। তাঁকে আটক করা হয়।

পরে র‌্যাব সদস্যরা তাঁকে নিয়ে সিমলা বাজারে তাঁর গুদামে তল্লাশি চালিয়ে আরও ১১০ বস্তা চাল জব্দ করেন। এ সময় সরকারি চাল কালোবাজারি ও বেআইনিভাবে মজুত করার অভিযোগে তাঁর সহযোগী আনছার আলীকে আটক করা হয়।

র‍্যাব–১২ বগুড়া ক‍্যাম্পের বিশেষ কোম্পানি অধিনায়ক রওশন আলী এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হতদরিদ্র মানুষের জন্য খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির এসব চাল কাগজে–কলমে বিতরণ দেখিয়ে কালোবাজারির মাধ্যমে পাচারের জন্য মজুত করা হয়েছিল। এর সঙ্গে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির মিলন সরদার নামের একজন ডিলার জড়িত। তিনি অভিযান টের পেয়ে গা–ঢাকা দিয়েছেন। তিনজনের নামে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


শেয়ার করুন...