কুকুর-বিড়াল খাওয়া নিষিদ্ধ করলো চীন

শেয়ার করুন...

কুকুর এবং বিড়ালের মাংস খাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে চীনের শহর শেনঝেন। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে যাওয়ার পর দেশটির প্রথম কোনো শহর নিষেধাজ্ঞা জারির এমন পদক্ষেপ নিল।

শেনঝেনে কুকুর-বিড়ালের মাংস বিক্রি এবং খাওয়া দুটোই পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবে। আর এ আইন বাস্তবায়ন করা হবে ১ মে থেকে। খবর বিবিসির।

নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে শেনঝেন শহর কর্তৃপক্ষের ভাষ্য হলো, পোষা প্রাণী হিসেবে মানুষ কুকুর এবং বিড়াল সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে। অন্য প্রাণীর চেয়ে এ দুটির সঙ্গে মানুষের সখ্যতাও বেশি। বিশ্বের উন্নত দেশগুলোসহ হংকং, তাইওয়ানেও কুকুর, বিড়ালসহ অন্য পোষা প্রাণী খাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির ঘটনা সাধারণ বিষয়।

হিউম্যান সোসাইটি ইন্টারন্যাশনাল মানুষ এবং প্রাণীদের মধ্যে বন্ধন স্থাপনে কাজ করে এমন একটি সংস্থা। একইসঙ্গে তারা প্রাণিদের প্রতি নিষ্ঠুরতার বিরুদ্ধেও কাজ করে।

সংস্থাটি বলছে, এশিয়াজুড়ে প্রতি বছর শুধুমাত্র মাংসের জন্য ৩০ মিলিয়ন (৩ কোটি) কুকুর হত্যা করা হয়।

শেনঝেন শহরের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে হিউম্যান সোসাইটি ইন্টারন্যাশনাল। সংস্থাটির চীন বিষয়ক পরিকল্পনার জন্য বিশেষজ্ঞ ড. পিটার লি বলেন, চীনে প্রতিবছর ১০ মিলিয়ন (১ কোটি) কুকুর এবং ৪০ লাখ বিড়াল হত্যা করা হয় মাংসের জন্য। শেনঝেন শহরের উদ্যোগ নৃশংস এ বাণিজ্য রোধে একটি বড় উদাহরণ হতে পারে।

এদিকে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে চীন বন্যপ্রাণী বিক্রি এবং খাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।


শেয়ার করুন...