ময়মনসিংহে মোবাইল চুরিতে বাধা দেয়ায় খুন

শেয়ার করুন...

মোবাইল চুরিতে বাধা দেয়ায় নৃশংসভাবে খুন করা হয় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম খানকে। তৌহিদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি আশিককে গ্রেফতারের পর এমন জবানবন্দী দিয়েছে আদালতে।

সোমবার বিকালে পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রবিবার রাতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ও কোতোয়ালী থানা পুলিশের যৌথ টিম নগরীর আকুয়া বোডঘর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

পরে জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, মোবাইল চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে যাওয়ায় তৌহিদকে রড দিয়ে আঘাত করে হত্যা করা হয়।

পরে তার দেয়া তথ্য মতে তিনকোনা পুকুরপাড় এলাকার একটি পুকুর থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রড এবং গাজীপুরের শ্রীপুরের এমসি বাজার থেকে হত্যাকারী আশিকের রক্তমাখা জামাকাপড় উদ্ধার করা হয়।
সোমবার বিকালে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান এসব তথ্য জানান।

এদিকে বিকেলে গ্রেফতারকৃত আশিককে ময়মনসিংহের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নেয়া হলে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করেছে বলেও জানিয়েছেন পুলিশ সুপার।


শেয়ার করুন...